fbpx
-15%

Chirata Powder – চিরতা গুড়া ১০০ গ্রাম


৳ 85.00 ৳ 100.00

চিরতা গুঁড়া 

 

সুপ্রাচীনকাল থেকে চিরতা ভারতবর্ষে গুরুত্বপূর্ণ ভেষজ হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। আয়ুর্বেদিক বৈশিষ্ট্যে চিরতার স্বাদ তিতা কিন্ত দারুণ উপকারি একটি ভেষজ খাবার।

 

চিরতা চর্ম রোগ ও জ্বর সারাতে অত্যন্ত কার্যকর। এছাড়াও চিরতা হেপাটাইটিস, ডায়াবেটিস, ম্যালেরিয়া জ্বর, অ্যাজমা প্রভৃতি কঠিন অসুখের চিকিৎসাতেও ব্যবহৃত হয়

 

👉 ডায়রিয়া ও লিভারের বিভিন্ন রোগে প্রতিরোধে চিরতার পানি উপকারী।

👉 জ্বরের কারণে বারবার বমি হতে থাকলে সেক্ষেত্রে ২ কাপ গরম পানিতে ৫ গ্রাম চিরতা গুঁড়া  ভিজিয়ে রাখুন। অতঃপর শুধু উপরের পানিটুকু অল্প অল্প করে পান করুন।

👉 ইনফ্লুয়েঞ্জা হলে ৫ থেকে ১০ গ্রাম চিরতা গুঁড়া ৪ কাপ পানিতে সিদ্ধ করে ২ কাপ করুন। এর পর শুধু পানিটুকু সকালে অর্ধেক এবং বিকালে অর্ধেক করে পান করুন

👉 হাঁপানির হলে আধা গ্রাম চিরতা গুড়া ৩ ঘণ্টা পর পর মধু মিশিয়ে ২ থেকে ৩ বার অল্প অল্প করে চেটে খান। হাঁপানির প্রকোপ কমবে।

👉 ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য বেশ উপকারি। চিরতা রক্তে চিনির পরিমাণ কমায়। রক্তে সুগারের পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখে। তাছাড়া এটি রক্তে কোলেস্টেরলের পরিমাণও কম করে।

👉 কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যায় নিয়মিত চিরতার পানি পান করলে উপকার পাওয়া যায়।

👉 কৃমির উপদ্রবে পেটব্যথা হলে সামান্য চিরতা গুঁড়া মধু বা একটু চিনি মিশিয়ে খান।

👉 চিরতার পানি লিভারকে পরিষ্কার রাখে। এছাড়া লিভারের বিভিন্ন সমস্যা যেমন ফ্যাটি লিভার ও আরও অন্যান্য সমস্যা নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে।

👉 অ্যানিমিয়ার সমস্যা কমাতে চিরতার পানি খুবই উপকারি। রক্ত কমে গেলে অ্যানিমিয়ার সমস্যা দেখা দেয়। চিরতার পানি রক্ত উৎপাদনে সাহায্য করে।

👉 চুল পড়ে যাওয়া রোধ করা যায় চিরতার মাধ্যমে। খুশকি থাকলে তাও সেরে যাবে চিরতার গুণে।

👉 রোজ চিরতার পানি করলে স্কিন ইনফেকশনের হাত থেকে বাঁচা যায়। ত্বক ভালো থাকে।

 

Category:

Based on 0 reviews

0.0 overall
0
0
0
0
0

Be the first to review “Chirata Powder – চিরতা গুড়া ১০০ গ্রাম”

There are no reviews yet.